1. ashraful.shanto@gmail.com : Ashraful Talukder : Ashraful Talukder
  2. newstalukder@gmail.com : Alamgir Talukder : Alamgir Talukder
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০২:২৫ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কচুয়ায় আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুস সুন্নাহ মাদ্রাসার নতুন ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শিশিরের জামিন লাভ॥ কচুয়াবাসীর নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কচুয়ায় কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সার-বীজ বিতরণ অবশেষে ২মাস ২৬ দিন কারাবরনের পর কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শিশিরের জামিন লাভ কচুয়া হাজীগঞ্জ সড়কে বিআরটিসি সিএনজি মুখোমুখী সংঘর্ষে নিহত ৩ মার্স্টা পরীক্ষার্থী ॥আহত ২ কচুয়ায় স্থানীয় সরকার (ইএএলজি) প্রকল্পের আওতায় ইউনিয়ন পরিষদ পর্যায়ে গনশুনানী কচুয়ার রহিমানগর ঝিলমিল সাংস্কৃতিক সংঘের কার্যকরী কমিটি গঠন: সভাপতি: ফরহাদ চৌধুরী,সম্পাদক মিনটু গুলবাহার টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ পরিদর্শনে যুগ্ম-সচিব সামছুর রহমান খান কচুয়ার কাদলা ও পশ্চিম সহদেবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় চেয়ারম্যান পদে ২০ প্রার্থীর নাম প্রস্তাব কচুয়ার গোহট উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা,দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী ৮
শিরোনাম
কচুয়ায় আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুস সুন্নাহ মাদ্রাসার নতুন ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শিশিরের জামিন লাভ॥ কচুয়াবাসীর নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কচুয়ায় কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সার-বীজ বিতরণ অবশেষে ২মাস ২৬ দিন কারাবরনের পর কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শিশিরের জামিন লাভ কচুয়া হাজীগঞ্জ সড়কে বিআরটিসি সিএনজি মুখোমুখী সংঘর্ষে নিহত ৩ মার্স্টা পরীক্ষার্থী ॥আহত ২ কচুয়ায় স্থানীয় সরকার (ইএএলজি) প্রকল্পের আওতায় ইউনিয়ন পরিষদ পর্যায়ে গনশুনানী কচুয়ার রহিমানগর ঝিলমিল সাংস্কৃতিক সংঘের কার্যকরী কমিটি গঠন: সভাপতি: ফরহাদ চৌধুরী,সম্পাদক মিনটু গুলবাহার টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ পরিদর্শনে যুগ্ম-সচিব সামছুর রহমান খান কচুয়ার কাদলা ও পশ্চিম সহদেবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় চেয়ারম্যান পদে ২০ প্রার্থীর নাম প্রস্তাব কচুয়ার গোহট উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা,দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী ৮

কচুয়ার মৃৎশিল্প বিলুপ্তির পথে

  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৯ মে, ২০১৫
  • ৯১৪ বার পড়া হয়েছে

kumar orgনিজস্ব সংবাদদাতা ॥
কচুয়ার মৃৎশিল্প বিলুপ্তির পথে । ্উপজেলার পশ্চিম সহদেবপুর ্ইউনিয়নের দারাশাহী তুলপাই পাল বাড়ি ও বিতারা পাল বাড়ির প্রায় ২৫টি পরিবার এখনও মাটি দিয়ে কলসী,ভাত রান্নার পাতিল,পিঠা তৈরীর সরঞ্জাম,মাটির ব্যাংকসহ হরেক রকম নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রবাদি তৈরী করে ধরে রেখছে প্রায় একশত বছরের পারিবারিক এ কুমার পেশা ।দারাশাহী তুলপাই পাল বাড়ির ষাটর্ধে শ্রীধাম চন্দ্র পাল জানান জম্মের পর থেকে বংশ পরস্পরায় এ কাজ শিখে আসাছি অন্য কাজ না শিখার কারনে ছাড়তেও পারছিনা না কুমার পেশা । অন্য কাজ না শিখার কারনে স্ত্রী,ছেলে,মেয়ে সবাই এ কাজে অভ্যস্ত । প্লাস্টিক সামগ্রী বাজার সয়লাব করার সাথে সাথে মাটির তৈরী নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রবাদি তৈরী চাহিদা কমতে শুরু করেছে । তাছাড়া যে এটেল মাটি মৃৎশিল্পের প্রধান উপকরন তাও এখন বেশী দামে কিনে আনার কারনে দাম বেড়ে গেছে মাটির তৈরী দ্রব্যাদির।পক্ষান্তরে মাটির পন্যের এখন বাজারে যা চাহিদা আছে তাতে তাদের জীবিকা নির্বাহ কঠিন হয়ে পড়েছে ।। তাছাড় তাদের ছেলে মেয়েদেরকেও কুমার পেশায় ধরে রাখা  সম্বব হচ্ছেনা । ফলে হারিয়ে যেতে বসেছে বাংলার ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প সরকার মাটির তৈরী এসব পন্যকে শিল্প হিসাবে গন্যকরে সহজ শর্তে বিনিয়োগ সুবিধা দেওয়ার উদ্যোগ নিলে  মৃৎশিল্প বাচিয়ে রাখা সম্বব।

কচুয়া: কচুয়ার দারাশাহী তুলপাই পাল বাড়ির কুমারদের মৃৎশিল্পের একাংশ

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার