1. ashraful.shanto@gmail.com : Ashraful Talukder : Ashraful Talukder
  2. newstalukder@gmail.com : Alamgir Talukder : Alamgir Talukder
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০২:৩২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কচুয়া সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের পাঠদান কার্যক্রমের উদ্বোধন আধুনিক চিকিৎসা সেবায় কচুয়া নিউলাইফ ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টার এর শুভ উদ্বোধন কচুয়ায় মহসিন হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন ভোট গণনায় জালিয়াতির অভিযোগে: কচুয়ার বিতারা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে পুন:ভোট গণনার দাবিতে মানববন্ধন ঝরা ধান কুড়িয়ে তিন নারীর জীবিকা অর্জন কচুয়ায় ঐতিহাসিক উজানী মাদ্রাসার বার্ষিক মাহফিল ১৩ জানুয়ারি শুরু ব্যবসায়ীদের স্বার্থরক্ষায় রহিমানগর বাজার পরিচালনা কমিটি কাজ করে যাচ্ছে …… আহবায়ক আব্দুস সালাম সওদাগর কচুয়ায় বিআরটিসি বাসের ধাক্কায় নিহত ২ কচুয়ায় আল আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ কচুয়ার পাথৈর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলী আক্কাছ মোল্লার মতবিনিময়
শিরোনাম
কচুয়া সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের পাঠদান কার্যক্রমের উদ্বোধন আধুনিক চিকিৎসা সেবায় কচুয়া নিউলাইফ ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টার এর শুভ উদ্বোধন কচুয়ায় মহসিন হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন ভোট গণনায় জালিয়াতির অভিযোগে: কচুয়ার বিতারা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে পুন:ভোট গণনার দাবিতে মানববন্ধন ঝরা ধান কুড়িয়ে তিন নারীর জীবিকা অর্জন কচুয়ায় ঐতিহাসিক উজানী মাদ্রাসার বার্ষিক মাহফিল ১৩ জানুয়ারি শুরু ব্যবসায়ীদের স্বার্থরক্ষায় রহিমানগর বাজার পরিচালনা কমিটি কাজ করে যাচ্ছে …… আহবায়ক আব্দুস সালাম সওদাগর কচুয়ায় বিআরটিসি বাসের ধাক্কায় নিহত ২ কচুয়ায় আল আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ কচুয়ার পাথৈর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলী আক্কাছ মোল্লার মতবিনিময়

আজ মহান মে দিবস, মালিক-শ্রমিক ঐক্য গড়ার প্রত্যয়

  • আপডেট : শুক্রবার, ১ মে, ২০১৫
  • ১০৩৭ বার পড়া হয়েছে

 

 

mকচুয়া বার্তা ডটকম: ০১/০৫/২০১৫

বীঢ়ৎবংং০০৭ৎড়পশংথ১৯৯৭৮৭৬৬২৬৫১৮০৩০৯২৬ভ০০৬৬.০৪৫৪৮২৯৯.লঢ়মথীষধৎমবআলতাফ হোসেন : মহান মে দিবস আজ। এ দিনটি মাঠেঘাটে, কলকারখানায় খেটে খাওয়া শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ে রক্তঝরা সংগ্রামের গৌরবময় ইতিহাস সৃষ্টির দিন। দীর্ঘ বঞ্চনা আর শোষণ থেকে মুক্তি পেতে ১৮৮৬ সালের এদিন বুকের রক্ত ঝরিয়ে ছিলেন শ্রমিকরা। এদিন শ্রমিকরা ৮ ঘণ্টা কাজের দাবিতে যুক্তরাষ্ট্রের সব শিল্পাঞ্চলে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিলেন। সে ডাকে শিকাগো শহরের ৩ লাখের অধিক শ্রমিক কাজ বন্ধ রাখেন। শ্রমিক সমাবেশকে ঘিরে শিকাগো শহরের হে মার্কেট রূপ নেয় লাখো শ্রমিকের বিক্ষুব্ধ সমুদ্রে। ১ লাখ ৮৫ হাজার নির্মাণ শ্রমিকের সঙ্গে আরও অসংখ্য বিক্ষুব্ধ শ্রমিক লাল ঝা-া হাতে সমবেত হন সেখানে। বিক্ষোভের একপর্যায়ে পুলিশ শ্রমিকদের ওপর নির্বিচারে গুলি চালালে ১০ শ্রমিক প্রাণ হারান।

অন্যদিকে হে মার্কেটের ওই শ্রমিক বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে সারাবিশ্বে। গড়ে ওঠে শ্রমিক-জনতার বৃহত্তর ঐক্য। অবশেষে তীব্র আন্দোলনের মুখে শ্রমিকদের দৈনিক ৮ ঘণ্টা কাজের দাবি মেনে নিতে বাধ্য হয় যুক্তরাষ্ট্র সরকার।

পরে ১৮৮৯ সালের ১৪ জুলাই প্যারিসে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক শ্রমিক সম্মেলনে শিকাগোর রক্তঝরা অর্জনকে স্বীকৃতি দিয়ে ওই ঘটনার স্মারক হিসেবে ১ মে ‘আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংহতি দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ১৮৯০ সাল থেকে প্রতিবছর দিবসটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ‘মে দিবস’ হিসেবে পালন করতে শুরু করে।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ পৃথক বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তারা শ্রমজীবী মানুষসহ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

আজ সরকারি ছুটি। সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালতের পাশাপাশি বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সব তফসিলি ব্যাংক ও কলকারখানা বন্ধ থাকবে।

রাষ্ট্রীয় কর্মসূচি : প্রতিবছরের ন্যায় এবারও রাষ্ট্রীয়ভাবে মে দিবস উদযাপন উপলক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সকাল সাড়ে ৭টায় রাজধানীর রাজউক এভিনিউস্থ শ্রম ভবনের সামনে থেকে একটি শোভাযাত্রা বের হবে। শোভাযাত্রাটি দৈনিক বাংলা মোড় ও পল্টন হয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাবে গিয়ে শেষ হবে। শ্রম প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে এতে শ্রমিক, মালিকপক্ষ এবং বিভিন্ন দপ্তরের প্রতিনিধি থাকবেন।

বিকাল সাড়ে ৪টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মে দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতার কেন্দ্র থেকে সরাসরি সম্প্রচার করবে।

জাতীয় পার্টির কর্মসূচি : মে দিবস উপলক্ষে আজ বিকাল ৩টায় জাতীয় পার্টির কাকরাইলস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনে শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত শ্রমিক সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। সভায় জাপা মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলুসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

বিভিন্ন সংগঠনের কর্মসূচি : মহান মে দিবস উপলক্ষে গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরাম সকাল ১১টায় গাজীপুর চৌরাস্তায় শ্রমিক সমাবেশ ও লাল পতাকা র‌্যালি, বিকাল সাড়ে ৩টায় আশুলিয়ার জামগড়ায় ফ্যান্টাসি কিংডমের সামনে শ্রমিক সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন সংগঠনের সভাপতি মোশরেফা মিশু।

জাতীয়ভিত্তিক ১২টি শ্রমিক সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত শ্রমিক ঐক্যের উদ্যোগে সকাল ১০টায় পুরানা পল্টন মোড়ে সমাবেশ ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে। এর নেতৃত্ব দেবেন শ্রমিক ঐক্যের সমন্বয়কারী শ্রমিকনেতা আনোয়রা বেগম ও শ্রমিক সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা।

গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের উদ্যোগে সকাল ১০টায় পুরানা পল্টন মুক্তি ভবনের সামনে সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বিকাল সাড়ে ৪টায় তেজগাঁও নাবিস্কো শহীদ মিনার, মধ্যবাড্ডা লুতফুন টাওয়ারের সামনে ও আশুলিয়ায় ফ্যান্টাসি কিংডমের সামনে শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র নেতাকর্মীরা সকাল ৯টায় কমরেড মণি সিংহ সড়কের মুক্তিভবনস্থ পার্টির কেন্দ্রীয় অফিসের সামনে সমবেত হবেন ও শ্রমিক সমাবেশে অংশগ্রহণ করবেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী হকার্স লীগের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের ৩য় তলায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) উদ্যোগে সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংগঠনের কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী এবং বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল এবং বিএফইউজে ও ডিইউজের প্রাক্তন নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে শ্রমভবন, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র ও রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক দ্বীপ ব্যানার, ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ড দ্বারা সজ্জিত করা হবে। জাতীয় পর্যায়ে গৃহীত কর্মসূচির আলোকে জেলা পর্যায়েও মহান মে দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাধ্যমে ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

এছাড়া বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। দিবস উপলক্ষে জাতীয় শ্রমিক লীগ, জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল, জাতীয় শ্রমিক জোট, বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন, জাসদ, গণফোরাম, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ও পোশাক শিল্পে কর্মরত শ্রমিকদের বিভিন্ন সংগঠন পৃথকভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এসব কর্মসূচির মধ্যে শ্রমিক সমাবেশ, শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান রয়েছে : ০১/০৫/২০১৫

অন্যদিকে হে মার্কেটের ওই শ্রমিক বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে সারাবিশ্বে। গড়ে ওঠে শ্রমিক-জনতার বৃহত্তর ঐক্য। অবশেষে তীব্র আন্দোলনের মুখে শ্রমিকদের দৈনিক ৮ ঘণ্টা কাজের দাবি মেনে নিতে বাধ্য হয় যুক্তরাষ্ট্র সরকার।

পরে ১৮৮৯ সালের ১৪ জুলাই প্যারিসে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক শ্রমিক সম্মেলনে শিকাগোর রক্তঝরা অর্জনকে স্বীকৃতি দিয়ে ওই ঘটনার স্মারক হিসেবে ১ মে ‘আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংহতি দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ১৮৯০ সাল থেকে প্রতিবছর দিবসটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ‘মে দিবস’ হিসেবে পালন করতে শুরু করে।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ পৃথক বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তারা শ্রমজীবী মানুষসহ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

আজ সরকারি ছুটি। সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালতের পাশাপাশি বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সব তফসিলি ব্যাংক ও কলকারখানা বন্ধ থাকবে।

রাষ্ট্রীয় কর্মসূচি : প্রতিবছরের ন্যায় এবারও রাষ্ট্রীয়ভাবে মে দিবস উদযাপন উপলক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সকাল সাড়ে ৭টায় রাজধানীর রাজউক এভিনিউস্থ শ্রম ভবনের সামনে থেকে একটি শোভাযাত্রা বের হবে। শোভাযাত্রাটি দৈনিক বাংলা মোড় ও পল্টন হয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাবে গিয়ে শেষ হবে। শ্রম প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে এতে শ্রমিক, মালিকপক্ষ এবং বিভিন্ন দপ্তরের প্রতিনিধি থাকবেন।

বিকাল সাড়ে ৪টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মে দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতার কেন্দ্র থেকে সরাসরি সম্প্রচার করবে।

জাতীয় পার্টির কর্মসূচি : মে দিবস উপলক্ষে আজ বিকাল ৩টায় জাতীয় পার্টির কাকরাইলস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনে শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত শ্রমিক সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। সভায় জাপা মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলুসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

বিভিন্ন সংগঠনের কর্মসূচি : মহান মে দিবস উপলক্ষে গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরাম সকাল ১১টায় গাজীপুর চৌরাস্তায় শ্রমিক সমাবেশ ও লাল পতাকা র‌্যালি, বিকাল সাড়ে ৩টায় আশুলিয়ার জামগড়ায় ফ্যান্টাসি কিংডমের সামনে শ্রমিক সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন সংগঠনের সভাপতি মোশরেফা মিশু।

জাতীয়ভিত্তিক ১২টি শ্রমিক সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত শ্রমিক ঐক্যের উদ্যোগে সকাল ১০টায় পুরানা পল্টন মোড়ে সমাবেশ ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে। এর নেতৃত্ব দেবেন শ্রমিক ঐক্যের সমন্বয়কারী শ্রমিকনেতা আনোয়রা বেগম ও শ্রমিক সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা।

গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের উদ্যোগে সকাল ১০টায় পুরানা পল্টন মুক্তি ভবনের সামনে সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বিকাল সাড়ে ৪টায় তেজগাঁও নাবিস্কো শহীদ মিনার, মধ্যবাড্ডা লুতফুন টাওয়ারের সামনে ও আশুলিয়ায় ফ্যান্টাসি কিংডমের সামনে শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র নেতাকর্মীরা সকাল ৯টায় কমরেড মণি সিংহ সড়কের মুক্তিভবনস্থ পার্টির কেন্দ্রীয় অফিসের সামনে সমবেত হবেন ও শ্রমিক সমাবেশে অংশগ্রহণ করবেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী হকার্স লীগের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের ৩য় তলায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) উদ্যোগে সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংগঠনের কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী এবং বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল এবং বিএফইউজে ও ডিইউজের প্রাক্তন নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে শ্রমভবন, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র ও রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক দ্বীপ ব্যানার, ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ড দ্বারা সজ্জিত করা হবে। জাতীয় পর্যায়ে গৃহীত কর্মসূচির আলোকে জেলা পর্যায়েও মহান মে দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাধ্যমে ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

এছাড়া বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। দিবস উপলক্ষে জাতীয় শ্রমিক লীগ, জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল, জাতীয় শ্রমিক জোট, বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন, জাসদ, গণফোরাম, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ও পোশাক শিল্পে কর্মরত শ্রমিকদের বিভিন্ন সংগঠন পৃথকভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এসব কর্মসূচির মধ্যে শ্রমিক সমাবেশ, শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান রয়েছে.কম : ০১/০৫/২০১৫

বীঢ়ৎবংং০০৭ৎড়পশংথ১৯৯৭৮৭৬৬২৬৫১৮০৩০৯২৬ভ০০৬৬.০৪৫৪৮২৯৯.লঢ়মথীষধৎমবআলতাফ

অন্যদিকে হে মার্কেটের ওই শ্রমিক বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে সারাবিশ্বে। গড়ে ওঠে শ্রমিক-জনতার বৃহত্তর ঐক্য। অবশেষে তীব্র আন্দোলনের মুখে শ্রমিকদের দৈনিক ৮ ঘণ্টা কাজের দাবি মেনে নিতে বাধ্য হয় যুক্তরাষ্ট্র সরকার।

পরে ১৮৮৯ সালের ১৪ জুলাই প্যারিসে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক শ্রমিক সম্মেলনে শিকাগোর রক্তঝরা অর্জনকে স্বীকৃতি দিয়ে ওই ঘটনার স্মারক হিসেবে ১ মে ‘আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংহতি দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ১৮৯০ সাল থেকে প্রতিবছর দিবসটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ‘মে দিবস’ হিসেবে পালন করতে শুরু করে।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ পৃথক বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তারা শ্রমজীবী মানুষসহ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

আজ সরকারি ছুটি। সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালতের পাশাপাশি বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সব তফসিলি ব্যাংক ও কলকারখানা বন্ধ থাকবে।

রাষ্ট্রীয় কর্মসূচি : প্রতিবছরের ন্যায় এবারও রাষ্ট্রীয়ভাবে মে দিবস উদযাপন উপলক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সকাল সাড়ে ৭টায় রাজধানীর রাজউক এভিনিউস্থ শ্রম ভবনের সামনে থেকে একটি শোভাযাত্রা বের হবে। শোভাযাত্রাটি দৈনিক বাংলা মোড় ও পল্টন হয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাবে গিয়ে শেষ হবে। শ্রম প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে এতে শ্রমিক, মালিকপক্ষ এবং বিভিন্ন দপ্তরের প্রতিনিধি থাকবেন।

বিকাল সাড়ে ৪টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মে দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতার কেন্দ্র থেকে সরাসরি সম্প্রচার করবে।

জাতীয় পার্টির কর্মসূচি : মে দিবস উপলক্ষে আজ বিকাল ৩টায় জাতীয় পার্টির কাকরাইলস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনে শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত শ্রমিক সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। সভায় জাপা মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলুসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

বিভিন্ন সংগঠনের কর্মসূচি : মহান মে দিবস উপলক্ষে গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরাম সকাল ১১টায় গাজীপুর চৌরাস্তায় শ্রমিক সমাবেশ ও লাল পতাকা র‌্যালি, বিকাল সাড়ে ৩টায় আশুলিয়ার জামগড়ায় ফ্যান্টাসি কিংডমের সামনে শ্রমিক সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন সংগঠনের সভাপতি মোশরেফা মিশু।

জাতীয়ভিত্তিক ১২টি শ্রমিক সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত শ্রমিক ঐক্যের উদ্যোগে সকাল ১০টায় পুরানা পল্টন মোড়ে সমাবেশ ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে। এর নেতৃত্ব দেবেন শ্রমিক ঐক্যের সমন্বয়কারী শ্রমিকনেতা আনোয়রা বেগম ও শ্রমিক সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা।

গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের উদ্যোগে সকাল ১০টায় পুরানা পল্টন মুক্তি ভবনের সামনে সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বিকাল সাড়ে ৪টায় তেজগাঁও নাবিস্কো শহীদ মিনার, মধ্যবাড্ডা লুতফুন টাওয়ারের সামনে ও আশুলিয়ায় ফ্যান্টাসি কিংডমের সামনে শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র নেতাকর্মীরা সকাল ৯টায় কমরেড মণি সিংহ সড়কের মুক্তিভবনস্থ পার্টির কেন্দ্রীয় অফিসের সামনে সমবেত হবেন ও শ্রমিক সমাবেশে অংশগ্রহণ করবেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী হকার্স লীগের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের ৩য় তলায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) উদ্যোগে সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংগঠনের কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী এবং বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল এবং বিএফইউজে ও ডিইউজের প্রাক্তন নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে শ্রমভবন, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র ও রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক দ্বীপ ব্যানার, ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ড দ্বারা সজ্জিত করা হবে। জাতীয় পর্যায়ে গৃহীত কর্মসূচির আলোকে জেলা পর্যায়েও মহান মে দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাধ্যমে ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

এছাড়া বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। দিবস উপলক্ষে জাতীয় শ্রমিক লীগ, জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল, জাতীয় শ্রমিক জোট, বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন, জাসদ, গণফোরাম, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ও পোশাক শিল্পে কর্মরত শ্রমিকদের বিভিন্ন সংগঠন পৃথকভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এসব কর্মসূচির মধ্যে শ্রমিক সমাবেশ, শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান রয়েছে

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার