1. ashraful.shanto@gmail.com : Ashraful Talukder : Ashraful Talukder
  2. newstalukder@gmail.com : Alamgir Talukder : Alamgir Talukder
  3. mahiuddin09@gmail.com : Mohammad Mahiuddin : Mohammad Mahiuddin
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৩:০৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কচুয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে হাড্ডা হাড্ডি লড়াই কচুয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক রাকিবুল হাসানের তালা প্রতীকের গনসংযোগ শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ইঞ্জিনিয়ার মকবুল হোসেন পাটওয়ারী চেয়ারম্যান নির্বাচিত উপজেলা নির্বাচনে স্থনীয় সাংসদের সমর্থনের বিষয়টি প্রপাগান্ডা: চেয়রম্যান প্রার্থী মাহবুব আলম কচুয়ায় জাতীয় পার্টির নির্বাচনী ইশতেহার ,বর্ধিত সভা ও গনসংযোগ কচুয়ায় গরু খামারীকে গুলি করে গরু চুরি কচুয়ায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী পারভীন আক্তারের প্রজাপতি মার্কায় গণসংযোগ কচুয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী আইয়ুব আলী পাটোয়ারীর দোয়াত-কলম মার্কার গণসংযোগ কচুয়ায় চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান ১৫ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্ধ কচুয়ায় এসএসসিতে পাসের হার শতকরা ৯৫, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৬৯ জন
শিরোনাম
কচুয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে হাড্ডা হাড্ডি লড়াই কচুয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক রাকিবুল হাসানের তালা প্রতীকের গনসংযোগ শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ইঞ্জিনিয়ার মকবুল হোসেন পাটওয়ারী চেয়ারম্যান নির্বাচিত উপজেলা নির্বাচনে স্থনীয় সাংসদের সমর্থনের বিষয়টি প্রপাগান্ডা: চেয়রম্যান প্রার্থী মাহবুব আলম কচুয়ায় জাতীয় পার্টির নির্বাচনী ইশতেহার ,বর্ধিত সভা ও গনসংযোগ কচুয়ায় গরু খামারীকে গুলি করে গরু চুরি কচুয়ায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী পারভীন আক্তারের প্রজাপতি মার্কায় গণসংযোগ কচুয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী আইয়ুব আলী পাটোয়ারীর দোয়াত-কলম মার্কার গণসংযোগ কচুয়ায় চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান ১৫ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্ধ কচুয়ায় এসএসসিতে পাসের হার শতকরা ৯৫, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৬৯ জন

কুমিল্লায় ভূল চিকিৎসায় কচুয়ার গৃহবধূর মৃত্যু

  • আপডেট : মঙ্গলবার, ৭ মে, ২০২৪
  • ১৭৫ বার পড়া হয়েছে

কুমিল্লায় ভূল চিকিৎসায় কচুয়ার গৃহবধূর মৃত্যু
নিজস্ব সংবাদদাতা॥
কুমিল্লা ইবনেসিনা ডায়াগনোষ্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারে ভূল চিকিৎসায় কচুয়ার কুলসুমা আক্তার (৩৮) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে।৬ মে সোমবার এ রাতে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।
কচুয়া উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের মাসনিগাছার গ্রামের শহিদুল ইসলামের স্ত্রী চার সন্তানের জননী কুলসুমা আক্তারের ২১ এপ্রিল প্রচন্ড পেট ব্যথা শুরু হলে কচুয়ার রহিমানগর বেসিক হসপিটালের ডাক্তার গাজী মাহফুজা জেনির পরমার্শ মোতাবেক কুমিল্লা ইবনেসিনা ডায়াগনোষ্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারে জরায়ুর আলট্রাসনোগ্রাম টিভিএস(পেলভিস) পরীক্ষা করান। পরীক্ষার রিপোর্ট এ কুলসুমা আক্তারের জরায়ুতে টিউমার আছে বলে সনাক্ত করেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর রিপোর্ট ও তার প্রচন্ড পেট ব্যথার অনুভব করলে ইবনেসিনায় কর্মরত গাইনী বিশেষজ্ঞ ডা: ফাহমিদা সুলতানা মিলির পরামর্শ ও চিকিৎসা নেন । ওইদিন রাতে কুলসুমা আক্তারের তীব্র পেট শুরু হলে ডাক্তার মিলির কাছে চিকিৎসার জন্য গেলে ডাক্তার মিলি পেটের ব্যথা প্রশমনের লক্ষ্যে জরুীর ভিত্তিতে ওইদিন রাতে ডাক্তার মিলি ইবনেসিনার পাশ্ববর্তী ইনসাফ মেডিকেলে তার অপরাশেন করান। অপারেশন করতে গিয়ে কুলসুমার জরায়ুতে কোন ধরনের টিউমার খুঁজে পায়নি ও ওই অবস্থায় অপরেশন সমাপ্ত করেন। অপারেশন করার ২ দিনপর কুলসুমার পূর্বের পেট ব্যথা ও অপারেশনের ব্যথাসহ আরো তীব্র হলে চিকিৎসকরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কুলসুমা আক্তারকে পূনরায় আলট্রাসনোগ্রাম পরীক্ষা করালে জরায়ুতে কোন ধরনের টিউমার নেই বলে নিশ্চিত হয় এবং বুকের নিচের টিউমার আছে বলে সনাক্ত করা হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৫ দিন চিকিৎসা শেষে অবস্থার অবনতি দেখে প্রথম গ্রীনলাইফ হাসপাতালে ৩ দিন কুলসুমাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয় । এ অবস্থায় ৬ মে সোমবার ভোররাতে কুলসুমা মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়।
কুলসুমার ভাই শাহজাহান ইসলাম খোকন জানান, কুমিল্লা ইবনেসিনা ডায়াগনোষ্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারে ভূল রিপোর্ট ও ডাক্তারের ভূল চিকিৎসার কারনে আমার বোন মারা যায়। আমরা যথাযথ কতৃপক্ষের কাছে এ ঘটনার বিচার দাবী করছি ।
কুলসুমার দেবর একরামুল হক জানান, কুমিল্লা ইবনেসিনা ডায়াগনোষ্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারে কুলসুমার ভূল চিকিৎসা ও ভুল অপারেশন হওয়ায় তাঁরা আমাদের নিকট কোন অপারেশনের বিল নেইনি।
কুলসুমার ডাক্তার ফাহমিদা সুলতানা মিলি জানান, রোগীর দুটি আলট্রাসনোগ্রাম রিপোর্ট ও শারিরীক অবস্থা দেখে অপারেশনের সিদ্বান্ত নেই। আমি ও সার্জন রণিসহ অপারেশন করতে গিয়ে রোগীর জরায়ুতে টিউমার পাই নাই । তাৎক্ষনিক ওই অবস্থায় ঘটনা সর্ম্পকে রোগীর অভিভাবককে অবহিত করে অপারেশন ক্লোজ করে দেই।
ইবনেসিনা ডায়াগনোষ্টি সেন্টারের ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) গোলাম মর্তুজা আমাদেরকে ঢাকায় প্রেরন করেন এবং চকিৎসার সকল ব্যয় বহন করার আশ্বান প্রদান করে পরবর্তীতে ইবনে সিনার কতৃপক্ষ আমাদের সাথে আরো কোন যোগাযোগ রাখেননি আমরা তাদের শাস্তি দাবী করছি।
এ দিকে কুমিল্লা ইবনেসিনা ডায়াগনোষ্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারে ব্যবস্থাপক প্রশাসন গোলাম মর্তুজা জানান,আমরা চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী টিভিএস(পেলভিস) পরীক্ষা করেছি।
ছবি: কুমিল্লা ইবনেসিনা ডায়াগনেষ্টি এন্ড কনসালটেশন সেন্টার। পাশে ভূল চিকিৎসায় নিহত কচুয়ার কুলসুমা আক্তার।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার